E Shram Card Registration Online 2023 | ই-শ্রম কার্ডের জন্য আবেদন কিভাবে করবেন, জেনে নিন এই নতুন পদ্ধতি

E Shram Card Registration :- ভারত সরকার দ্বারা পরিচালিত নতুন শ্রম কার্ড প্রকল্প ভারতের সমস্ত দরিদ্র শ্রমিকদের সুবিধার জন্য ই- শ্রম কার্ড বানানো হচ্ছে। এখন অবধি ভারতের কোটি কোটি মানুষ তাদের ই শ্রম কার্ড রেজিস্ট্রেশন করেছে, যদি আপনি এখনও পর্যন্ত নিজের শ্রম কার্ড রেজিস্ট্রেশন করেননি তবে সব কাজ ছেড়ে নিজের E Shram Card Registration করে নিন নাহলে এই প্রকল্প থেকে কোনো সুবিধার লাভ পাবেন না।

বন্ধুরা, যদি আপনি জানেন না যে E Shram Card এর সুবিধা কি? এই পোস্ট মনোযোগ সহকারে পড়ুন যাতে জানতে পারবেন যে এই প্রকল্প থেকে শ্রমিকেরা কি কি সুবিধা পাবেন। এছাড়া আপনি যদি এখনও আপনার শ্রম কার্ড বানাননি, তাহলে এই পোস্ট থেকে আপনি জানবেন কিভাবে আপনি অনলাইনে E Shram Card Registration করতে পারবেন।

Voter Aadhaar Link: ৩১ মার্চের মধ্যে ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ডও লিঙ্ক করতে হবে, কিভাবে করবেন? ক্লিক করে জেনে নিন

আজ এই পোস্টে শ্রম কার্ড কি, শ্রম কার্ড প্রকল্প থেকে কি সুবিধা/লাভ, Labour Card এর সুবিধা, ই শ্রম কার্ড কিরকম,  Online E Shram Card আবেদন কিভাবে করে, ই শ্রম কার্ডের সম্পর্কে বিস্তার জানবো এবং আপনাকে অবশ্যই এই পোস্টটি সম্পূর্ন পড়তে হবে –

বিষয় সূচী ~

ই-শ্রম কার্ড কি? (What is E Shram Card in Bengali)

সবার প্রথমে ই-শ্রম কার্ড কি? তা সংক্ষেপে জেনে নেওয়া যাক, ই-শ্রম কার্ড ভারত সরকার রোজগার মন্ত্রালয় জারি করেছে, এই ই-শ্রম কার্ড প্রকল্পটি সারা ভারতের শ্রমিক পরিবারগুলির সুবিধার জন্য এবং দুর্যোগের ক্ষেত্রে তাদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য চালু করা হয়েছে।

এই প্রকল্পের অধীনে, সরকার শ্রমিকদের অনেক সুবিধা দেওয়ার ঘোষণা করেছে এবং এই প্রকল্পের সুবিধা শুরুতে উত্তর প্রদেশ সরকার শ্রমিকদের দেওয়া শুরু করে দিয়েছে। উত্তর প্রদেশ সরকার এখন পর্যন্ত লক্ষ শ্রম কার্ডধারকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি 500 থেকে 1000 টাকা পাঠিয়েছে। এবং টানা 4 মাস প্রতি মাসে 500 টাকা দেওয়ার ঘোষণা করেছে। পরবর্তী সময়ে এই প্রকল্পের পরিমাণ টাকা এবং নির্ধারিত তারিখ বাড়ানো যেতে পারে।

ঘরে বসে আধার কার্ডের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করুন

পিএম কিষাণের নিয়মে বড়ো পরিবর্তন। মানতে হবে এই ৪টি শর্ত। নাহলে পাওয়া যাবে না কিস্তির টাকা 

ই-শ্রম কার্ডের সুবিধা (E Shram Card Benefits in Bengali)

বন্ধুরা, এখন আপনি জানতে পারবেন শ্রম কার্ডের সুবিধা কি, চলুন জেনে নেওয়া যাক –

  1. ➡️ সরকার এই প্রকল্পে সব শ্রম কার্ডধারকদের 2 লক্ষ টাকা পর্যন্ত দুর্ঘটনা বীমার সুবিধা দেওয়ার ঘোষণা করেছে।
  2. ➡️ যারা নিজের E Shram Card Registration করেছেন তারা ভবিষ্যতে পেনশনের সুবিধা পেতে পারেন।
  3. ➡️ এছাড়া ভবিষ্যতে কোনো ধরনের দুর্যোগ হলে সরকার সরাসরি তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে শ্রমিকদের সাহায্য করবে।
  4. ➡️ এছাড়া ব্যয়বহুল চিকিৎসায় সরকার আর্থিকভাবে সহায়তা করবে।
  5. ➡️ যদি একজন শ্রম কার্ড ধারক দরিদ্র হন এবং থাকার জন্য পাকা বাড়ী না থাকে, তাহলে সরকার পাকা বাড়ী তৈরির জন্য অর্থ প্রদান করবে।
  6. ➡️ এর পাশাপাশি যদি কোনো গর্ভবতী মহিলা কর্মচারীর কাজ করতে সক্ষম না হন, তাহলে সরকার তার এবং তার সন্তানদের জন্য সম্পূর্ন ব্যবস্থা করবে।
  7. ➡️ শ্রমিকদের সন্তানদের শিক্ষার জন্য সরকার আর্থিক সহায়তা দেবে।

আরও পড়ুন

কিভাবে ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড এবং মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করবেন?

অনলাইনে E Shram Card Registration এর জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

Documents Required for E Shram Card Online Registration in Bengali: শ্রমিক কার্ড রেজিস্ট্রেশনের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্রগুলি নিম্নরূপ –

  1. ➡️ আধার কার্ড (Aadhaar Card)
  2. ➡️ পাসপোর্ট সাইজ ফটো (Passport Size Photo)
  3. ➡️ PAN Card (না থাকলে কোনো সমস্যা নেই)
  4. ➡️ ব্যাংক অ্যাকাউন্টের বিবরন
  5. ➡️ মোবাইল নাম্বার

উপরে দেওয়া সব নথিগুলো দিয়ে আপনি আপনার ই শ্রম কার্ড বানাতে পারবেন এবং শ্রম কার্ডের সুবিধা নিতে পারবেন।

ই-শ্রম কার্ডের জন্য যোগ্যতা (E Shram Card Eligibility)

ভারত সরকার দ্বারা পরিচালিত শ্রম প্রকল্পতে শুধুমাত্র ইচ্ছুক ব্যক্তি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। যার বয়স অনেক কম বা যাদের বয়স অনেক বেশি, তাহলে এমন পরিস্থিতিতে তারা শ্রম কার্ড বানাতে পারবেন না ও তারা ই শ্রম কার্ড সম্পর্কিত সুবিধা নিয়ে পারবেন না। চলুন জেনে নেওয়া যাক কারা এই E Shram কার্ড রেজিস্ট্রেশনের জন্য Eligible এবং আর কারা নয়।

  • সর্বপ্রথম আপনাকে একজন ভারতীয় নাগরিক হতে হবে, তবেই আপনি শ্রম কার্ড বানাতে পারবেন এবং E Shram কার্ডের সুবিধা নিতে পারবেন।
  • আপনার বয়স 18 বছরের থেকে বেশি হতে হবে।
  • আর আপনার বয়স 59 বছরের বেশি না হয়।

E Shram কার্ডের সুবিধাভোগী

  • কৃষি শ্রমিক
  • ভাগ ফসল
  • জেলে
  • ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক
  • লেবেলিং অ্যান্ড প্যাকেজিং
  • বিল্ডিং অ্যান্ড কন্ট্রাকশন
  • কাঠ মিস্ত্রি
  • চামড়া কর্মী
  • গৃহ কর্মী
  • নাপিত
  • সবজি ও ফল বিক্রেতা
  • রিক্সা চালক
  • সংবাদপত্র বিক্রেতা
  • CSC কেন্দ্র চালক
  • আশা কর্মী
  • MGNREGA কর্মী

[2023] বিনামূল্য শৌচালয়ের জন্য অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া শুরু, এভাবে করুন আবেদন

আধার কার্ডে জন্ম তারিখ আপডেট করার লিমিট পেরিয়ে গেছে? মাত্র 24 ঘণ্টায় আপডেট হবে DOB

E Shram Card Registration প্রক্রিয়া জানুন

E Shram কার্ড Registration করার জন্য আপনি চাইলে কোনো জন-সেবা কেন্দ্রে গিয়ে বানাতে পারেন এছাড়া আপনি চাইলে এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট eshram.gov.in গিয়ে Self Registration করতে পারেন এবং এর পিডিএফ ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

E shram Card Registratio 2022
  • ➡️ প্রথমে আপনাকে ই-শ্রম পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে eshram.gov.in যেতে হবে।
  • ➡️ এর হোম পেজে গিয়ে রেজিষ্টার অন ই-শ্রম (Register On e-Shram) বিকল্পে ক্লিক করুন।
  • ➡️ রেজিষ্টার ফর্ম খুলে যাবে, এই পেজে আপনার আধার লিঙ্ক মোবাইল নাম্বার, Captcha Code, ইপিএফও (EPFO) এবং ইএসআইসি (ESIC) মেম্বার স্ট্যাটাস নির্বাচন করুন।
  • ➡️ এখন আপনার মোবাইল নাম্বারে OTP পাঠানোর জন্য Send OTP বিকল্পে ক্লিক করুন।
  • ➡️ আপনার মোবাইল নাম্বারে পাঠানো OTP টি লিখুন।
  • ➡️ এখন আবেদন ফর্মটিকে সম্পূর্ন পূরণ করুন, যেখানে আপনার নাম, ঠিকানা, বয়স, স্যালারি লিখতে হবে।
  • ➡️ ফর্ম সম্পূর্ন পুরন করার পর আপনাকে এর সাথে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসও আপলোড করতে হবে, এরপর Submit বিকল্পে ক্লিক করুন।
  • ➡️ এখন আপনার e-Shram Card Registration প্রক্রিয়া সফলভাবে Submit হয়ে গেছে।

PAN Card Big Update – আপনার প্যান কার্ড আছে? তবে আজই সেরে নিন এই কাজ! নইলে দিতে হবে 10,000 টাকা জরিমানা।

Video এর মাধ্যমে E Shram Card Registration Process

নিচের ভিডিওটি দেখে আপনি আপনার E Shram কার্ড Registration প্রক্রিয়া সম্পূর্ন করতে পারেন।

E Shram Card Login করার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সবপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ Home Page এ আপনাকে Admin Login অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এরপর আপনার সামনে একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  5. ➡️ এখানে আপনাকে আপনার ইমেইল আইডি, পাসওয়ার্ড এবং ক্যাপচা লিখতে হবে।
  6. ➡️ এরপর আপনাকে Sign in অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  7. ➡️ এইভাবে আপনি Admin Login করতে পারেন।

E Shram কার্ড সংশোধন করার প্রক্রিয়া –

যদি আপনি কোনো কারণবশত E Shram কার্ডে কোনো ভুল হয়ে যায় তবে ওই ভুল অনলাইনের মাধ্যমে সংশোধন করা সম্ভব।

আপনার তথ্য সংশোধন করার জন্য আপনাকে নিম্নলিখিত স্টেপগুলো ফলো করতে হবে –

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Already Register Update অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এরপর আপনার সামনে একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  5. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Profile অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  6. ➡️ এরপর আপনার সামনে আবার একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  7. ➡️ এই পেজে জিজ্ঞাসা করে গুরুত্বপূর্ন তথ্যগুলি লিখতে হবে।
  8. ➡️ এখন আপনাকে Update অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  9. ➡️ এইভাবে আপনি আপনার E Shram Card Update করতে পারবেন।

E Shram কার্ডের টাকা কিভাবে চেক করবেন?

E Shram কার্ডের টাকা চেক করার জন্য সরকার দুটো বিকল্প প্রদান করেছে। প্রথম বিকল্পের অধীনে, জমা করা পরিমাণের বিবরণ পেতে আপনি আপনার ব্যাঙ্কের পাশবুক চেক অথবা ব্যাঙ্কের টোল ফ্রি নম্বরে যোগাযোগ করে জানতে পারেন। আর একটা বিকল্প হলো অনলাইনের মাধ্যমে চেক করা। নিম্নলিখিত স্টেপগুলো ফলো করে e Shram কার্ডের টাকা চেক করতে পারেন ।

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে UMANG পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Login/Register বিকল্প নির্বাচন করতে হবে।
  4. ➡️ এর পরে আপনাকে Create Account এ ক্লিক করতে হবে।
  5. ➡️ এখন আপনাকে মোবাইল নাম্বার লিখতে হবে।
  6. ➡️ এরপর আপনার মোবাইল নাম্বারে প্রাপ্ত OTP লিখতে হবে।
  7. ➡️ এখন আপনাকে Register বিকল্প নির্বাচন করতে হবে।
  8. এরপরে আপনাকে Login করতে হবে।
  9. ➡️ এরপর আপনাকে সার্চ বক্সে PFMS বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  10. ➡️ এরপর আপনাকে Know Your Payments বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  11. ➡️ এরপর আপনাকে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নাম্বার এবং ব্যাঙ্ক নাম দিতে হবে।
  12. ➡️ এরপর ক্যাপচা লিখে Submit করতে হবে।
  13. ➡️ আপনি Submit অপশনে ক্লিক করার সাথে সাথেই আপনার স্ক্রিনে প্রাসঙ্গিক তথ্য খুলে যাবে।

Amul Franchise নিয়ে প্রতি মাসে আয় করুন লাখ লাখ টাকা।

CSC Locate করার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ Home Page এ থাকা সিএসসি Locator অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এখন আপনার সামনে নতুন পেজ খুলে আসবে।
  5. ➡️ আপনাকে এই পেজে আপনার রাজ্য এবং জেলা নির্বাচন করতে হবে।
  6. ➡️ CSC সম্পর্কিত তথ্য আপনার স্ক্রিনে চলে আসবে।

E Shram কার্ডের অফিসার সম্পর্কিত তথ্য

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে হোম পেজ খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে থাকা আপনাকে About অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এরপর আপনাকে Who’s Who অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  5. ➡️ এখন আপনার সামনে একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  6. ➡️ এই পেজে আপনি অফিসার সম্পর্কিত তথ্য দেখতে পাবেন।

অভিযোগ করার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Contact Us বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এখন আপনাকে Grievance অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  5. ➡️ এরপর আপনার সামনে Grievance Form খুলে আসবে।
  6. ➡️ আপনাকে এই ফর্মে জিজ্ঞাসা করা গুরুত্বপূর্ন তথ্য পূরণ করতে হবে।
  7. ➡️ এরপর আপনাকে Lodge Grievance বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  8. ➡️ এইভাবে আপনি অভিযোগ (Grievance) করতে পারেন।

স্কিম সম্পর্কিত তথ্য পাওয়ার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Schemes বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এখন আপনার সামনে নিম্নলিখিত দুটো বিকল্প আসবে
  5. ➡️ Social Security Welfare Schemes
  6. ➡️ Employment Schemes
  7. ➡️ আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  8. ➡️ প্রাসঙ্গিক তথ্য আপনার স্ক্রিনে আসবে।

যোগাযোগ করার তথ্য দেখার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Contact Us বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ আপনার সামনে একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  5. ➡️ এই পেজে আপনি সমস্ত Contact Details দেখতে পাবেন।

User Guide Download করার প্রক্রিয়া

  1. ➡️ সর্বপ্রথম আপনাকে E Shram পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. ➡️ এখন আপনার সামনে Home Page খুলে আসবে।
  3. ➡️ হোম পেজে আপনাকে Services বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  4. ➡️ এরপর User Guide বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  5. ➡️ এখন একটি নতুন পেজ খুলে আসবে।
  6. ➡️ এই পেজে আপনাকে ডাউনলোড বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  7. ➡️ আপনি ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করার সাথে সাথেই User Guide আপনার ডিভাইসে ডাউনলোড হয়ে যাবে।

এখন বাড়িতে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ভোটার কার্ড সংশোধন করে নিন

যোগাযোগের বিবরণ

আমরা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাকে E Shram পোর্টাল সম্পর্কিত সকল গুরুত্বপূর্ন তথ্য প্রদান করে দিয়েছি।

Helpline Number 📞 – 14434

Phone number ☎️ – 011-23389928

Email ✉️ – eshram-care@gov.in

Address  – Ministry of Labour & Employment, Govt. of India, Jaisalmer House, Mansingh Road, New Delhi-110011, India

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প নিয়ে বিরাট আপডেট, টাকা পেতে অবিলম্বে করুন এই কাজ

FAQs of E Shram Card Registation Online 2023

E Shram Card কি? | What is E Shram Card?

এই ই-শ্রমিক কার্ড হল অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকদের পরিচয়পত্র। যার ভিতরে একজন শ্রমিকের ব্যক্তিগত তথ্যের পাশাপাশি তার শিক্ষা, দক্ষতা এবং পেশা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য এই E Shram কার্ডের ভিতরে লিপিবদ্ধ থাকবে। যাতে এই তথ্যের সাহায্যে সরকার শ্রমিকদের জন্য সঠিক যোজনা ও কর্মসংস্থান করতে পারে।

আমি কি মোবাইল ফোন থেকে E Shram কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারি? | Can I apply for e shram card through mobile?

হ্যাঁ, আপনি eshram.gov.in পোর্টালে গিয়ে খুব সহজে মোবাইল দিয়ে e Shram Card বানাতে পারবেন।

একজন ছাত্র কি E Shram কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারে? | Can students apply for E Shram Card?

না, কোনো ছাত্র E Shram কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। কারণ শুধুমাত্র অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকরাই ই-শ্রম কার্ড তৈরি করতে পারবেন।

Taxi Driver কি ই শ্রম কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারে? | Can a taxi driver apply for e shram card?

হ্যাঁ, Taxi Driver ই শ্রম কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন।

নমস্কার বন্ধুরা, আশাকরি আপনারা E Shram কার্ডের সম্পর্কে সম্পূর্ন তথ্য পেয়েছেন এবং বুঝতেও পেয়েছেন। যদি আপনার কোনো সমস্যা হয়, তবে নীচের কমেন্ট বক্সে জিজ্ঞাসা করতে পারেন। Visit InfoNet Bangla For More Updates.

Thank You 🙏

আরও পড়ুন:

বিনামূল্যে শৌচালয়ের জন্য অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া শুরু, এভাবে করুন আবেদন

PM কিষাণ যোজনার স্ট্যাটাস চেক করুন মোবাইল নম্বর দিয়ে

প্রকাশিত হল প্রধানমন্ত্রী শৌচালয় যোজনার নতুন তালিকা, দেখে নিন আপনার নাম এসেছে কিনা

আর আধার সেন্টারে যাওয়ার প্রয়োজন নেই, এখন বাড়িতে বসে মোবাইল দিয়ে আধার কার্ড সংশোধন করতে পারবেন

PAN Aadhaar Link মিনিটের মধ্যে হয়ে যাবে, আজই জেনে নিন অনলাইন প্রসেস

নতুন ভোটার কার্ড অনলাইন আবেদন করুন মোবাইল দিয়ে, নতুন পদ্ধতি দেখে নিন

এখন বাড়িতে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ভোটার কার্ড সংশোধন করে নিন

ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিঙ্ক করার খুব সহজ উপায় দেখে নিন

মাত্র 10 মিনিটে বানিয়ে নিন নতুন PAN CARD, জেনে নিন কিভাবে ?

Digital Ration Card Download – মাত্র 2 মিনিটে ডাউনলোড করুন নিজের ডিজিটাল রেশন কার্ড, রইলো বিস্তারিত পদ্ধতি।

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

Leave a Comment

Join Join