Women Farmers – নজর ভোটব‍্যাঙ্কে! মহিলাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে কয়েক হাজার টাকা, কীভাবে পাবেন? দেখুন

Published on:
By
Saheb
Women Farmers

শুরু হয়ে গিয়েছে দিল্লি দখলের লড়াই। আর সেই লড়াইয়ে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি পরিচালিত কেন্দ্রীয় সরকার যাতে ফের ক্ষমতায় আসতে পারে, সেই লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে একের পর এক জনমোহিনী নীতি বাস্তবায়িত করার চেষ্টা চলছে। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন ধরনের অনুদানমূলক প্রকল্পের (Social Project) ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সহ বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা ফের দিল্লির মসনদ দখলের পথ সুগম করতে চাইছেন। এমনিতেই নির্বাচন আসলে, তা সে লোকসভা বা বিধানসভা অথবা পৌরসভা বা পঞ্চায়েত, যাই হোক না কেন, সমস্ত ক্ষেত্রেই দেখা যায়, রাজনৈতিক দলগুলির একের পর এক প্রতিশ্রুতি প্রদান। পরবর্তীতে বহু সময় সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে ব্যর্থ হতেও দেখা যায় সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দলকে। কিন্তু নির্বাচনে জেতার জন্য মানুষের কাছে ভুরিভুরি প্রতিশ্রুতি দেওয়ার এই নিয়মের কোনো পরিবর্তন হতে দেখা যায় না। সে যাই হোক, এবার ২০২৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে (Loksabha Election) বিজেপি তার জয়ের রাস্তা সুগম করতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা মহিলাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এক প্রকল্প গ্রহণ করতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। এমনিতে মহিলা ভোট ব্যাংক নিজেদের দখলে রাখতে রাজনৈতিক দলগুলি বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধার প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকে। এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার দেশের মহিলা কৃষকদের জন্য বছরে ১২ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রে এই খবর জানা গিয়েছে। যদিও কেন্দ্রের অর্থমন্ত্রক বা কৃষি মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে কোনো কিছু জানা যায়নি। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের আধিকারিকদের সূত্রে জানা যায়, কেন্দ্রীয় সরকার দেশের মহিলা কৃষকদের (Women Farmers) ১২,০০০ টাকা করে আর্থিক সুবিধা প্রদান করার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আর এটা করলে লোকসভা নির্বাচনে মহিলাদের ভোটের অধিকাংশটাই নিজেদের দখলে আনতে পারবে বিজেপি। এই চিন্তা ভাবনা থেকেই এমন প্রকল্পের সূচনা হতে পারে।

দেশজুড়ে সাধারণ নির্বাচনের আগে ১ ফেব্রুয়ারি Vote on Account বা অন্তর্বর্তীকালীন বাজেট পেশ করতে পারেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। এই বাজেটেই এই বিষয়টি থাকতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। তবে যদি মহিলা কৃষকদের জন্য বছরে ১২ হাজার টাকা করে আর্থিক সুবিধা দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়, তাহলে কেন্দ্রের কোষাগার থেকে বেশ কয়েক হাজার কোটি টাকা একলপ্তে বেরোতে পারে। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনার (PM Kisan Yojana) অধীনে দেশজুড়ে কৃষকদের বছরে ৬০০০ টাকা করে দেওয়া হয়। প্রতিবছর তিন কিস্তিতে ২০০০ টাকা করে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে মহিলা কৃষকদের (Women Farmers) জন্য এই অংক দ্বিগুণ করার চিন্তাভাবনা হতে পারে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে। দেশের কৃষি ক্ষেত্রের পরিসংখ্যান থেকে জানা যাচ্ছে, কৃষকদের মধ্যে মহিলা কৃষকদের সংখ্যা প্রায় ৬০ শতাংশ আর জমির মালিকানা রয়েছে মহিলা কৃষকদের মধ্যে প্রায় ১৩ শতাংশের। যাদের জমির মালিকানা রয়েছে এমন মহিলা কৃষকদের যদি বছরে ১২,০০০ টাকা করে কেন্দ্রীয় সরকার দিতে পারে, তাতে কোষাগারের উপর বিরাট কিছু চাপ পড়বে বলে মনে করছেন না অনেকেই।

আরও পড়ুন » রাজ্যে চালু হলো যোগ্যশ্রী প্রকল্প, জেনে নিন কি কি সুবিধা মিলবে

আবার এক ঢিলে দুই পাখি মারার মত লোকসভা নির্বাচনে মহিলা ভোট ব্যাংকের অনেকটাই নিজেদের দখলে নিয়ে আসা যাবে। বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে নারীদের ক্ষমতায়ন (Women Empowerment) সম্পর্কে প্রচার করতে পারবে বিজেপি। স্বাভাবিকভাবে গ্রামীণ অর্থনীতির ক্ষেত্রে যদি সরাসরি সরকারের তরফে টাকা উপভোক্তার অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হয় তাহলে তা একটা ভালো প্রভাব ফেলতে পারে। এক্ষেত্রে যদি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ভোট অন অ্যাকাউন্টে মহিলা কৃষকদের জন্য বছরে ১২,০০০ টাকা করে সুবিধা দেওয়ার প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়, তাহলে নির্বাচন রাজনীতির ময়দানে দাঁড়িয়ে এই বিষয়টি জোরদারভাবে প্রচার করতে পারবে বিজেপি।

আরও পড়ুন » ভোটের আগেই সরকারি দপ্তরে নিয়োগের ঘোষণা মুখ‍্যমন্ত্রীর, কত শূন্যপদ, কীভাবে আবেদন করবেন?

এই প্রসঙ্গে একাধিক অর্থনীতিবিদের মতে, দেশজুড়ে মহিলা কৃষকদের জন্য আর্থিক সুবিধা দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে লোকসভা নির্বাচনে অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে। মহিলাদের সমর্থন বাড়তে পারে। তবে এক্ষেত্রে কংগ্রেসের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ বিভাগের তরফে এও জানানো হচ্ছে, নির্বাচনের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে কোনো জনমোহিনী নীতি বাস্তবায়িত করতে চাইলে বা ঘোষণা করলে তার যে ফায়দা পাওয়া যাবে এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই। তবে সে যাই হোক, কিষাণ সম্মান নিধির নিয়ম মোতাবেক বর্তমানে দেশজুড়ে কৃষকদের ৬০০০ টাকা দেওয়া হয়, সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে মহিলা কৃষকদের জন্য যদি সেই টাকার অঙ্ক দ্বিগুণ করে ১২ হাজার টাকা করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র, তাহলে সেটা নির্বাচনের আগে মাস্টারস্ট্রোক বলা যেতেই পারে। এখন দেখার বিষয়, আগামী দিনে এর থেকে কোনো উপরি লাভ কেন্দ্রীয় সরকার তুলতে পারে কিনা।
Written By Rajib Ghosh.

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

Saheb -এর সম্পর্কে
I'm Saheb, a content writer in education and government schemes. I research, write, and edit articles on education and government schemes, presenting complex information clearly. I'm passionate about creating engaging, informative content that educates. In my free time, I read, travel, and spend time with loved ones. I'm always learning. Read More...
For Feedback - [email protected]

Leave a Comment

Join Join