Electricity Bill Free – হাসি ফুটলো মানুষের মুখে, বিদ‍্যুৎ বিলের জন্য আর টাকা দিতে হবে না, কীভাবে এই সুবিধা পাবেন, জেনে নিন

প্রতিমাসের শেষে যখন বিদ্যুৎ দপ্তরের তরফে বিল (Electricity Bill) আসে, তখন যেন একেবারে মাথায় হাত পড়ে যায়। বাজারে যেভাবে সমস্ত কিছু জিনিসপত্রের দাম একেবারে লাগামছাড়া ভাবে বাড়ছে, ঠিক তার সঙ্গে যেন প্রতিযোগিতা শুরু করেছে বিদ্যুৎ দপ্তর। বিদ্যুতের বিলও একেবারে জেট গতিতে বেড়েই চলেছে। সাধারণ, নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষের পক্ষে বাড়িতে বিদ্যুৎ খরচ করতে গিয়ে বারে বারে চিন্তা করতে হয়। এই বুঝি মাসের শেষে বিদ্যুতের বিল একেবারে আকাশছোঁয়া হয়ে গেল। আর হচ্ছেও তাই। প্রতিমাসেই যেন বিদ্যুৎ বিল বেড়ে চলেছে। এই মাসে যা পেলেন, পরের মাসে দেখা যাচ্ছে সেই অংক আরো টপকে গিয়েছে। আর বিদ্যুৎ ছাড়া তো এক মুহুর্ত চলা যাবে না।

যদি একবার ভেবে দেখেন যে, এই মুহূর্তে বিদ্যুৎ বা ইলেকট্রিসিটি নেই, বন্ধ হয়ে গেছে, তাহলে দেখবেন, সমাজ যেন আজ থেকে কয়েকশো বছর পিছনে চলে গেছে। ফলে বিদ্যুৎ লাগবেই (Electricity is Essential) কিন্তু এরকম একটা পরিস্থিতির মধ্যেও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে রাজ্যের সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নতুন এক ধরনের প্রকল্প (New Project for Electricity) নিয়ে আসা হয়েছে। যার ফলে সাধারণ, নিম্নবিত্ত, গরীব মানুষেরা বিদ্যুতের বিলের ক্ষেত্রে বিরাট একটা সুবিধা পাবেন। এই বিষয়টি সম্বন্ধে অধিকাংশ মানুষই হয়তো এখনো জানেন না।

❖  Related Articles

একবার জেনে নেওয়া যাক, পশ্চিমবঙ্গ সরকার বিদ্যুৎ পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে এমন কোন প্রকল্প চালু করেছে, যার মাধ্যমে মানুষ উপকৃত হবেন? সেই প্রকল্পে কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে? কিভাবেই বা আবেদন করবেন? কারাই বা এই সুবিধায় অন্তর্ভুক্ত হবেন? এক নজরে বিস্তারিত দেখে নেওয়া যাক।

প্রকল্পটির নাম কি?

রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পটির নাম হলো হাসির আলো প্রকল্প (Hasir Aalo Prakalpa)। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০২০ সালে বিদ্যুৎ পরিষেবার ক্ষেত্রে এই হাসির আলো প্রকল্পটির সূচনা করেন। এর মাধ্যমে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষজন 75 ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ খরচ করলে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তা পাবেন (75 Unit Bill Free) অর্থাৎ তার জন্য একটি পয়সাও বিদ্যুৎ দপ্তরকে দিতে হবে না। এখনো পর্যন্ত রাজ্যের বহু মানুষ এই হাসির আলো প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন এবং তারা এই সুবিধা পাচ্ছেন।

কারা হাসির আলো প্রকল্পে আবেদন করতে পারেন (Beneficiary of Hasir Aalo Project)

এই প্রকল্পটি কিন্তু সবার জন্য নয়। রাজ্য সরকারের তরফে এই হাসির আলো প্রকল্পটি সমাজের আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর জন্য (Financially Weaker Class) চালু করা হয়েছে। যাদের অন্ত‍্যোদয় অন্ন যোজনা (AAY) বা BPL রেশন কার্ড রয়েছে, একমাত্র তারাই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। প্রতি 3 মাসে 75 ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুতের বিল যাদের হয়, তাদের এক্ষেত্রে পয়সা দিতে হবে না। তবে এই বিপিএল কার্ডধারী ব্যক্তিদের যদি ৭৫ ইউনিটের বেশি বিদ্যুতের বিল হয়, তাহলে ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুতের বিল বাদ দিয়ে বাকিটুকুর জন্যই টাকা দিতে হবে।

75 unit electricity bill free in west bengal
Electricity Bill Free in WB

আরও পড়ুন » এবার নিজের বাড়ির ছাদে সোলার প্যানেল বসিয়ে পান ৩৬ হাজার টাকা! জেনে নিন কীভাবে করবেন আবেদন

এই প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন (How to Apply for this Project)

বিদ্যুৎ দপ্তরের হাসির আলো প্রকল্পে আবেদন করা খুবই সহজ। বর্তমানে রাজ্য সরকারের তরফে যে সমস্ত দুয়ারে সরকার ক্যাম্প (Duare Sarkar Camp) মাঝেমধ্যেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে, সেখানে গিয়ে ফরম ফিলাপ করে আবেদন করতে পারেন। আবার আপনার নিকটবর্তী বিদ্যুৎ দপ্তরের অফিসে গিয়েও এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারেন। সেক্ষেত্রে সমস্ত নথিপত্র সহ আবেদন জমা দিতে হবে। বিদ্যুৎ দপ্তর তা পর্যবেক্ষণ করে এবং অনুসন্ধান করার পরেই আপনার জন্য এই হাসির আলো প্রকল্পটি চালু করার সিদ্ধান্ত নেবে।

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

1 thought on “Electricity Bill Free – হাসি ফুটলো মানুষের মুখে, বিদ‍্যুৎ বিলের জন্য আর টাকা দিতে হবে না, কীভাবে এই সুবিধা পাবেন, জেনে নিন”

Leave a Comment

Join Join