SCSS Scheme – পোস্ট অফিসের এই দুর্দান্ত স্কিমে প্রতিমাসে আয় করুন ২০ হাজার টাকা! বিনিয়োগ শুরু মাত্র হাজার টাকায়

SCSS Scheme: প্রতিটি মানুষ তাদের অর্থ উপার্জনের পাশাপাশি ভবিষ্যতের জন্য বিনিয়োগের দিকে খেয়াল রাখেন। অর্থ বিনিয়োগের নানান স্কিম রয়েছে, যা থেকে বেশ ভালো পরিমাণ টাকা রিটার্ন পাওয়া যায়, তবে অবসরের পর গচ্ছিত টাকার সুদের উপর ভরসা করেই যেহেতু সংসার চালাতে হয়, তাই কোনো ঝুঁকিপূর্ণ প্রকল্পে লগ্নি করতে দ্বিধাবোধ করেন মানুষ। নিশ্চিত রিটার্নের স্কিমগুলিই সকলের কাছে বেশি পছন্দের।

এই তালিকার একেবারে শীর্ষে রয়েছে ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিট ও পোস্ট অফিসের টার্ম ডিপোজিট। বর্তমানে পোস্ট অফিসের সেভিংস স্কিমগুলি খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এর মধ্যে একটি হলো পোস্ট অফিস সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম (SCSS Scheme). যা বিশেষত প্রবীণ নাগরিকদের জন্য এবং এতে বিনিয়োগের উপর বার্ষিক সুদ ৮ শতাংশের বেশি, অর্থাৎ ব্যাঙ্ক ফিক্সড ডিপোজিটের থেকেও এর সুদের পরিমাণ বেশি।

❖  Related Articles

সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম সুদের হার

এটি অবসর গ্রহণের পর বয়স্ক ব্যক্তিদের আয়ের ব্যবস্থা করে দেয়, তাই পোস্ট অফিসের সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম বেশ পছন্দ করেন প্রায় সকলেই। পোস্ট অফিস সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম শুধুমাত্র বিভিন্ন ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিটের তুলনায় উচ্চ সুদ দেয় না, প্রবীণদের একটি নিয়মিত আয়ও নিশ্চিত করে এবং এতে বিনিয়োগ করে প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত উপার্জন করা যায়। সরকার বিনিয়োগকারীদের জন্য ১লা জানুয়ারি থেকে এই স্কিমে সুদের হার করেছে ৮.২ শতাংশ।

Post Office SCSS Scheme
Post Office SCSS Scheme

মাসিক আয় হবে ২০ হাজার টাকা

আপনি পোস্ট অফিস সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস (SCSS) স্কিমে ১,০০০ টাকা দিয়ে বিনিয়োগ করে একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। এই স্কিমে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারেন। যদি এই স্কিমে একজন ব্যক্তি প্রায় ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন, তাহলে তিনি বার্ষিক ২.৪৬ লাখ টাকা সুদ পাবেন। মাসের হিসেবে এটি ২০ হাজার টাকা। এই স্কিমটি অবসর গ্রহণের পরে আর্থিকভাবে স্বচ্ছল থাকতে আপনাকে সহায়তা করবে।

কারা এই স্কিমে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন?

৬০ বছর বা তার বেশি বয়সের যেকোনো ব্যক্তি যৌথ অ্যাকাউন্টও খুলতে পারেন। এই স্কিমে বিনিয়োগকারী ব্যক্তিকে ৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে হবে। যদি এই সময়ের আগে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করা হয়, তবে অ্যাকাউন্টধারককে দিতে হবে জরিমানা।

কিছু ক্ষেত্রে দেওয়া হয় বয়সের ছাড়

এই প্রকল্পের আওতায় কিছু কিছু ক্ষেত্রে বয়সের ছাড়ও দেওয়া হয়। অ্যাকাউন্ট খোলার সময় যেমন কোনো ডিআরএস গ্রহণকারী ব্যক্তির বয়স ৫৫ বছরের বেশি এবং ৬০ বছরের কম হতে পারে, তেমন করে কোনো অবসরপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষা কর্মীদের বয়স ৫০ বছরের বেশি এবং ৬০ বছরের কম হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধ এবং শর্ত রয়েছে।

এই স্কিমে কর ছাড়ের সুবিধা রয়েছে

পোস্ট অফিসের এই স্কিমে কর ছাড়ের সুবিধা পাওয়া যায়। বিনিয়োগকারী ব্যক্তিকে আয়কর আইনের ধারা BOC-এর অধীনে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত বার্ষিক কর ছাড় দেওয়া হয় এবং প্রতি তিন মাসে সুদের পরিমাণ পরিশোধের ব্যবস্থা রয়েছে এই স্কিমে। প্রতি এপ্রিল, জুলাই, অক্টোবর ও জানুয়ারি মাসের প্রথম দিনে সুদ দেওয়া হয়। অ্যাকাউন্ট ধারক মেয়াদপূর্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে মারা গেলে তার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং এই অর্থ ওই অ্যাকাউন্ট ধারকের নমিনিকে হস্তান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন » কেন্দ্র সরকার নাম মাত্র সুদে দিচ্ছে বিনা গ্যারান্টিতে ৩ লাখ টাকা! কীভাবে মিলবে এই টাকা জানুন

কিভাবে আবেদন করবেন?

আপনি আপনার নিকটস্থ পোস্ট অফিসে গিয়ে এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন খুব সহজেই। সঙ্গে সমস্ত প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সঙ্গে করে নিয়ে যেতে ভুলবেন না।

Senior Citizen Savings Scheme (SCSS) এর বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানতে ইন্ডিয়া পোস্টের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন অথবা এখানে ক্লিক করে জানুন

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

Leave a Comment

Join Join