মাধ্যমিক পাশ করলেই রাজ্যের এই স্কলারশিপে মিলবে ১০ হাজার টাকা, কারা পাবেন, কিভাবে আবেদন করবেন?

Updated on:
Nabanna Scholarship Uttarkanya Scholarship Application Details 2023

আর কিছু দিনের মধ্যেই প্রকাশিত হবে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট। এরপর পড়াশোনা চালিয়ে যেতে অর্থের প্রয়োজন হলে রাজ্য রাজ্য সরকার দেবে টাকা। পশ্চিমবঙ্গে বসবাসকারী দরিদ্র এবং আর্থিকভাবে দুর্বল শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিকভাবে সহায়তা করার জন্য রাজ্য সরকারের তরফে নানাধরনের স্কলারশিপ কার্যকর করেছে। আর এই সমস্ত স্কলারশিপগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো নবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ (Nabanna Scholarship / Uttarkanya Scholarship)। ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত করাই এই স্কলারশিপের প্রধান উদ্দ্যেশ্য।

যদিও এই স্কলারশিপটি পশ্চিমবঙ্গের দুই ক্ষেত্রে দুই নানে পরিচিত। দক্ষিণবঙ্গে এই স্কলারশিপটি ‘নবান্ন স্কলারশিপ’ নামে পরিচিত এবং উত্তরবঙ্গে ‘উত্তরকন্যা স্কলারশিপ’ নামেও পরিচিত।

স্কলারশিপের নামনবান্ন স্কলারশিপ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ (Nabanna scholarship / Uttarkanya scholarship)
প্রদানকারী দপ্তরপচিমবঙ্গ সরকার
স্কলারশিপের উদ্দেশ্যমেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিকভাবে সহায়তা করা
সুবিধাভোগীমাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, স্নাতক স্তরের ছাত্রছাত্রীরা 
স্কলারশিপের টাকার পরিমানপ্রতি বছরে ১০,০০০ টাকা
আবেদনের শেষ তারিখনিদিষ্ট কোনো তারিখ নেই
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttp://wbcmo.gov.in/

Nabanna Scholarship or Uttarkanya Scholarship 2023

কারা পাবেন এই সুবিধা?

মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও স্নাতক স্তরের ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের সুবিধা পাবেন। তবে এই সুবিধা পাওয়ার জন্য কিছু যোগ্যতা পূরণ করতে হবে। নীচে দেখে নিন –

  • প্রথমত এই স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য ছাত্র বা ছাত্রীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • যেসকল ছাত্র-ছাত্রীরা মাধ্যমিকে ৫০ শতাংশ থেকে ৬০ শতাংশের মধ্যে নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন তারাই এই স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্য।
  • উচ্চমাধ্যমিকে ৫০ শতাংশ থেকে ৬০ শতাংশের মধ্যে নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হওয়া ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
  • অন্যদিকে, স্নাতক স্তরে যেসমস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা ৫৩ শতাংশ থেকে ৫৫ শতাংশের মধ্যে নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন তারাই এই স্কলারশিপের আওতায় আবেদন জানতে পারবেন।
  • ছাত্র বা ছাত্রীর পরিবারের বাৎসরিক আয় ১,২০,০০০ টাকার কম হতে হবে।
  • যদি কোনো ছাত্র বা ছাত্রী অন্য কোনো সরকারি স্কলারশিপের আওতায় অনুদান পেয়ে থাকেন তাহলে ওই ছাত্র বা ছাত্রী নবান্ন স্কলারশিপের আওতায় আবেদন করতে পারবেন না।
  • কেবলমাত্র পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বীকৃত যেকোনো বোর্ড, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ পরীক্ষার উত্তীর্ণ হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের স্বীকৃত কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরবর্তী ক্লাসে ভর্তি হতে হবে।

কত টাকা করে পাওয়া যাবে?

নবান্ন স্কলারশিপের আওতায় থাকা সকল ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি বছর ১০,০০০ টাকা অনুদান প্রদান করা হয়। তবে কোর্স অনুযায়ী টাকার পরিমান ভিন্ন রকমের হয়।

নবান্ন স্কলারশিপে আবেদন করবেন কিভাবে?

  • নবান্ন স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য প্রথমে http://wbcmo.gov.in/ ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন ফর্মটি ডাউনলোড করতে হবে।
  • এরপর আবেদন ফর্মটি প্রিন্ট করে নিতে হবে।
  • এরপর ফর্মটি সঠিক তথ্য দিয়ে পূরণ করে নির্দিষ্ট জায়গায় আবেদনকারীর একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি বসাতে হবে।
  • এরপর আবেদনপত্রের সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমস্ত নথি সংযুক্ত করে নির্দিষ্ট ঠিকানায় পোস্টের মাধ্যমে বা নিজে গিয়ে জমা করতে হবে।

আপনাদের সুবিধার্থে আবেদনপত্র ডাউনলোড করার লিঙ্ক নীচে প্রদান করা হয়েছে।

আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ঠিকানা

দক্ষিণবঙ্গের ছাত্র-ছাত্রীদের ‘নবান্ন অফিসে’ গিয়ে আবেদনপত্রটি জমা করতে হবে এবং উত্তরবঙ্গের ছাত্র-ছাত্রীদের ‘উত্তকন্যা অফিসে’ গিয়ে আবেদনপত্রটি জমা করতে হবে। আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ঠিকানা নীচে দেওয়া হলো –

নবান্ন স্কলারশিপের আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ঠিকানা (দক্ষিণবঙ্গের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য) :-

Nabanna,

14th Floor,

325, Sarat Chatterjee Road,

Shibpur,

Howrah – 711102

উত্তরকন্যা স্কলারশিপ জমা দেওয়ার ঠিকানা :-

Uttarkanya,

P.O. – Satellite Township,

Fulbari,

Jalpaiguri – 734015

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে কিভাবে আবেদন করবেন জানুন

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস

  • স্কলারশিপের আবেদনপত্র।
  • পূর্ববর্তী পরীক্ষার মার্কশিট।
  • বর্তমান কোর্সে ভর্তির প্রমাণপত্র বা রশিদ।
  • আবেদনকারীর পরিচয়পত্র হিসেবে আধার কার্ড/ ভোটের কার্ড/ রেশন কার্ড।
  • আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • সেল্ফ ডিক্লারেশন কপি।
  • পরিবারের বার্ষিক আয়ের সার্টিফিকেট।
  • DM/SDO/BDO/Joint BDO/ Executive Officer in Municipality/ Deputy Commissioner of Corporation/Executive Officer বা Group A ক্যাটাগরির সরকারী অফিসারের কাছ থেকে প্রাপ্ত বাৎসরিক আয়ের সার্টিফিকেট।
  • এলাকার MP/MLA -এর রেকমেন্ডেশন লেটার।
  • র‌্যাঙ্ক কার্ড (JEE বা সমমানের পরীক্ষার জন্য)
  • আবেদনকারী ছাত্র বা ছাত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের পাসবুকের প্রথম পাতার জেরক্স।
  • আবেদনকারীর বৈধ মোবাইল নম্বর ও ইমেইল এড্রেস।

আবেদনের সময়সীমা

এই স্কলারশিপের আওতায় আবেদন করার জন্য নিদিষ্ট কোনো সময়সীমা নেই। ছাত্র-ছাত্রীরা তাঁদের বর্তমান কোর্স চলাকালীন যেকোনো সময়ে এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

নবান্ন স্কলারশিপ হেল্পলাইন নম্বর

(033)2214 1902 & (033) 2253 5278

গুরুত্বপূর্ন লিঙ্কগুলি

নবান্ন স্কলারশিপ আবেদন ফর্মDownload
উত্তরকন্যা স্কলারশিপ আবেদন ফর্মDownload
MLA রেকমেন্ডেশন ফর্মDownload
সেল্ফ ডিক্লারেশন ফর্মDownload
অফিশিয়াল ওয়েবসাইটVisit Now

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

ÍnfoNet Bangla (Admin) -এর সম্পর্কে
I'm a professional blogger. Here on infonetbangla.in I write about Sarkari Yojana, News, Job, Technology, Banking & Finance. Read More...
For Feedback - [email protected]

Leave a Comment

Join Join